1. admin@ekdeshi.com : Ekdeshi :
  2. editor@ekdeshi.com : Ek Deshi : Ek Deshi
রাতে নিজের গায়ে আগুন, ভোরে মৃত্যু আউটসোর্সিং কর্মীর

রাতে নিজের গায়ে আগুন, ভোরে মৃত্যু আউটসোর্সিং কর্মীর

  • সময় : শনিবার, ২০ মার্চ, ২০২১
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

রাতে নিজের গায়ে আগুন, ভোরে মৃত্যু আউটসোর্সিং কর্মীর

ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দগ্ধ হওয়া মিলন নামে (২৫) এক শারীরিক প্রতিবন্ধীর মৃত্যু হয়েছে। মিলন আউটসোর্সিংয়ে এক বছর ধরে ওই ইনস্টিটিউটে রিসিপশনের কাজ করছিলেন।

শনিবার (২০ মার্চ) ভোর ৫টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তার শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সূত্র জানায়, আউটসোর্সিং কর্মী মিলন ঋণগ্রস্ত ছিলেন। অন্যদিকে দুই-তিন মাস ধরে কর্মস্থল থেকে বেতন পাচ্ছিলেন না। বেতন ঠিকমত না পাওয়ায় পাওনাদারদের চাপে ছিলেন তিনি। সেজন্য শুক্রবার (১৯ মার্চ) রাত ১টার দিকে ইনস্টিটিউটের নিচতলায় ওয়াশরুমে নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। তখন সহকর্মীরা মিলনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে ভোর ৫টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

মিলনের সহকর্মী তাজমির জাগো নিউজকে বলেন, মিলন তিন-চার মাস পর একবার বেতন পেতেন। তিনি ঋণগ্রস্ত ছিলেন। বেতন ঠিকমত না পাওয়ায় পাওনাদারদের চাপে নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও বাঁচানো যায়নি। তার শরীরের ৯৫ ভাগে পুড়ে গেছে বলে জেনেছি।

বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. পার্থ শংকর পাল বলেন, মিলনের শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল, চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভোর ৫টার দিকে তার মৃত্যু হয়েছে।

শেয়ার করুন:

আরোও খবর...
© All rights reserved ©Ekdeshi.com